April 5, 2020, 12:01 pm

শিরোনাম :
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসকে জয় করে সুস্থ হয়ে উঠছেন বলিউডের সেই গায়িকা কেউ যেন ঢাকায় প্রবেশ বা বের হতে না পারে,পুলিশের মহাপরিদর্শক আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীর নির্দেশ জরুরি সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহামারী প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের দুর্বলতার খোঁজ পেলেন বিজ্ঞানীরা! কেশবপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দু’ব্যাবসায়ীকে জরিমানা সামাজিক দূরত্ব মেনে চৌদ্দগ্রামে চেয়ারম্যান জাফর ইকবালের উদ্যোগে ৪৫০ হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কক্সবাজার পৌরসভায় আজ রোববার থেকে ১০ টাকা দামের চাল বিক্রি শুরু ভ্রাম্যমান টিসিবির পণ্যসামগ্রী বিক্রয়ের উদ্বোধন করলেন এমপি আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী কেশবপুরে ওড়নায় ফাঁস দিয়ে এক ছাত্রীর আত্মহত্যা ফোন দিলে ঘরে পৌঁছে যাবে খাদ্য সহায়তা

জেরুজালেমকে ইসরায়েলি রাজধানীর স্বীকৃতি দিতে পারে অস্ট্রেলিয়া: মরিসন

Spread the love

জেরুজালেমকে ইসরায়েলি রাজধানীর স্বীকৃতি দিতে পারে অস্ট্রেলিয়া: মরিসন

ডিটেকটিভ আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জেরুজালেমের স্বীকৃতির প্রশ্নে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পথেই হাঁটতে চাইছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। তিনি বলেছেন, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার কথা ভাববে অস্ট্রেলিয়া। পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার ইসরায়েলস্থ রাজধানী তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়ার কথাও ভাবা হবে। তবে কোনও ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে নিজের মন্ত্রিসভা ও অন্য দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন মরিসন। একে ধোঁকাবাজি বলে আখ্যা দিয়েছে বিরোধীরা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এসব কথা জানা গেছে। এর আগে মরিসনের পূর্বসূরী ও সাবেক অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন। ২০১৭ সালের ৬ ডিসেম্বর জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন স্বীকৃতির সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইসরায়েলস্থ মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়ারও ঘোষণা দেন তিনি। ঘোষণা অনুযায়ী, গত মে মাসে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়া হয়। এ নিয়ে বিশ্বজুড়ে তুমুল নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। কয়েকটি দেশ যুক্তরাষ্ট্রকে অনুসরণ করলেও বেশিরভাগ দেশই ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অবস্থান জানিয়ে নিজেদের দূতাবাস তেল আবিবেই রেখে দেয়। তবে এবার অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলছেন, দুতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়ার কথা ভাবছেন তিনি। গতকাল মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মরিসন বলেন, ‘দ্বি-রাষ্ট্র সমাধান নীতির প্রতি আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তবে খোলাখুলিভাবে বলতে গেলে এটা ভালোভাবে কাজ করছে না, এ ব্যাপারে খুব বেশি অগ্রগতি হয়নি।’

মরিসন জানান, একইসঙ্গে দ্বি-রাষ্ট্র সমাধানের প্রতি সমর্থন বজায় রাখা এবং জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি দেওয়া-দুটোই করতে পারে অস্ট্রেলিয়া। তিনি মনে করেন, ভবিষ্যতে পরিস্থিতি এমন হতে পারে যে পূর্ব জেরুজালেমকে ফিলিস্তিনি রাজধানী আর পশ্চিম জেরুজালেমকে ইসরায়েলি রাজধানীর স্বীকৃতি দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া।

স্কট মরিসন বলেছেন, জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তরের ধারণাটি তাকে দিয়েছেন ইসরায়েলে নিযুক্ত সাবেক রাষ্ট্রদূত ডেভ শর্মা। ইহুদি-অধ্যুষিত ওয়েন্টওর্থ এলাকায় আগামি শনিবার অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া উপনির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর তার শূন্য আসনটিতে উপ নির্বাচন হচ্ছে। ওই আসনে শর্মা ভোটে না জিতলে বর্তমান হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাবেন মরিসন। বিরোধীদের অভিযোগ, ইহুদি অধ্যুষিত এলাকায় ভোট পেতে ‘অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রনীতি নিয়ে বিপজ্জনক ও ধোঁকাবাজিপূর্ণ শব্দ খেলায় মেতেছেন’ মরিসন।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ