August 17, 2019, 7:10 pm

শিরোনাম :
নিলাদ্রী থেকে বাড়ি ফেরার পথে তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক গ্রেফতার নবীগঞ্জে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম জিয়ার জন্মবার্ষিকী পালন মিঠাপুকুরে স্বামীর নেশার টাকা যোগান দিতে না পারায় স্ত্রীকে গলায় ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা স্বামী আটক শিবগঞ্জে শতাধিক এতিম প্রতিবন্ধীদের মাঝে শাড়ী লুঙ্গী বিতরণ তালায় অবিরাম বৃষ্টিতে জনজীবন বিপর্যস্ত পানিবন্দি হয়ে পড়েছে শত শত পরিবার ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত দেশ গড়তে চাওয়ায় বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয় পাইকগাছার দুস্থ ও হতদরিদ্র মানুষের সাথে শোক দিবসের খাবার খেলেন এমপি বাবু সুন্দরগঞ্জে শিশু বলাৎকারের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার ভারতীয় সহকারী রাষ্ট্রদূতের অদৈত্ব মহা প্রভুর মন্দির পরিদর্শনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে পাইকগাছায় মধ্যহ্ন ভোজে ছিন্নমূল মানুষের সাথে এমপি আকতারুজ্জামান বাবু

জরাজীর্ণ ও ঝুকিপূর্ণ ভবনে চলছে পাইকগাছার ঐতিহ্যবাহী কপিলমুনি ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম : দ্রুত নতুন কমপ্লেক্স নির্মাণের দাবী

Spread the love

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ

খুলনার পাইকগাছায় জরাজীর্ণ ঝুকিপূর্ণ ভবনে চলছে কপিলমুনি ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম। জীবনের ঝুকি নিয়ে পরিষদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকায় যেকোন সময় জীবনহানীসহ বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশংকা করছেন পরিষদ কর্তৃপক্ষ। ভবনটিকে দ্রুত পরিত্যাক্ত ঘোষণা করে নতুন ভবনের দাবী জানিয়েছেন ইউনিয়নবাসী।
উল্লেখ্য, জেলার পাইকগাছা উপজেলার বাণিজ্যিক শহর কপিলমুনি বাজারের উপর ১৯৬০ সালে মাত্র ৫ শতক জমিতে কপিলমুনি ইউনিয়ন পরিষদের ভবন স্থাপিত হয়। দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে দ্বিতল ভবনের নিচতলা ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়ায় পরিষদ কর্তৃপক্ষ পরিষদের সকল কার্যক্রম দ্বিতল ভবনে স্থানান্তর করে। এদিকে, সংস্কারের কোন উদ্যোগ গ্রহণ না করায় দ্বিতল ভবনেরও একই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে দ্বিতল ভবনের ৪টি কক্ষের মেঝের খোয়া ও বালি উঠে গেছে। প্লাস্টার খসে খসে পড়ছে। এমনকি ছাদের বিশাল অংশ জুড়ে ধ্বসে পড়েছে। নষ্ট হয়ে গেছে জানালা-দরজা সহ ব্যবহারের সকল আসবাবপত্র। ফলে জরাজীর্ণ ঝুকিপূর্ণ ভবনে চলছে পরিষদের সকল কার্যক্রম। জীবনের ঝুকি নিয়ে কাজ করছে পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিসহ কর্মচারীবৃন্দ। জীবনহানীর মত শঙ্কা ও অজানা আশঙ্কার মধ্যে প্রতিদিন সেবা নিতে আসছেন ইউনিয়নের শ’শ’ মানুষ। ইতোমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ ভবন আধুনিকায়ন করা হলেও কপিলমুনির ঐতিহ্যবাহী এ পরিষদটি সংস্কারে কর্তৃপক্ষের কোন তৎপরতা নেই। প্রতাপকাটি গ্রামের আব্দুল লতিফ গাজী জানান, বিভিন্ন প্রয়োজনে ইউনিয়ন পরিষদে যেতে হয়। কিন্তু ভবনের যে করুণ অবস্থা তাতে সুস্থ শরীর নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারব কিনা সব সময় এ ধরণের ভীতি কাজ করে। ইউপি চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়াদ্দার জানান, বিকল্প কোন ব্যবস্থা না থাকায় ঝুকিপূর্ণ ভবনেই পরিষদের কার্যক্রম পরিচালনা করতে বাধ্য হচ্ছি। ইতোমধ্যে জরাজীর্ণ ও ঝুকিপূর্ণ ইউনিয়ন পরিষদ ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আবেদনও করেছি। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। কোন বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটনার আগেই অতি দ্রুত পরিত্যক্ত ঘোষণা করে আধুনিক মানের নতুন ভবন নির্মাণ করার দাবী জানিয়েছে ইউনিয়নবাসী। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না জানান, প্রয়োজনীয় জমি না থাকায় নতুন ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স নির্মাণ করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে নতুন কমপ্লেক্স নির্মাণের জন্য ইতোমধ্যে ইউপি চেয়ারম্যানকে জমি ক্রয়ের জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আশা করছি, অচিরেই একটি নতুন ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ করা হবে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/০৮ আগস্ট ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ