September 22, 2019, 10:50 pm

জগন্নাথপুরে সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হক  ছবিঃ ফখরুল ইসলাম

জগন্নাথপুরে সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হককে হয়রানীর অভিযোগ

Spread the love

ফখরুল ইসলাম,জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ

জগন্নাথপুরে সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হক  ছবিঃ ফখরুল ইসলাম

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হককে আবারো হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। জানাগেছে, স্থানীয় বাগময়না গ্রামের কুশিয়ারা নদী পাড়ে শেখ জালাল ওরফে আবদুর রাজ্জাক ও তার সামনের অংশে থাকা প্রতিবেশি ধীরাজ বিশ^াসের স্ত্রী জোসনা রাণী বিশ^াসের মধ্যে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ হয়। এতে নারী সহ ৩ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়। এ ঘটনায় সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হককে জড়িয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।গত ২৯ জুন শনিবার সরজমিনে জোসনা রাণী বিশ^াস বলেন, আবদুর রাজ্জাকের মাটির ভিটা উচু ও আমাদের ঘর নিচু থাকায় বৃষ্টির পানি আমাদের ঘরে চলে আসে। যে কারণে আমি আমার ঘরের বাইরে পানি যাওয়ার জন্য সামন্য খাদ করে দেই। এ নিয়ে আবদুর রাজ্জাক ও শেখ দিলাল আমাদেরকে মারপিট করেছে। তবে চেয়ারম্যানকে মামলায় জড়ানোর কারণ জানতে চাইলে তিনি সদোত্তর দিতে পারেননি। শেখ জালাল ওরফে আবদুর রাজ্জাক বলেন, সামান্য বিষয় নিয়ে তাদের সাথে কথা কাটাকাটি হলেও কোন সংঘর্ষ হয়নি। তাই কেউ আহত হওয়ার প্রশ্নই উঠে না।এ ব্যাপারে সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হক বলেন, আমি কয়েক দিন ধরে অসুস্থ্য। ঘটনার দিন ঘর থেকে বের হতে পারিনি। অথচ বিনা অপরাধে আমাকে মামলায় জড়িয়ে হয়রানীর চেষ্টা করা হচ্ছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার জায়গা সম্পত্তি নিয়ে আমার ছেলে এনামের সাথে বিরোধ রয়েছে। এ নিয়ে মামলা-মোকদ্দমা চলছে। যে কারণে আমার ছেলে এনামের হয়ে ওই হিন্দু মহিলা আমায় জায়গায় থেকে আমাকে বারবার বিভিন্নভাবে হয়রানী করছে।এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী জগন্নাথপুর থানার এসআই অনুজ কুমার দাশ বলেন, এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তদন্তক্রমে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১জুলাই ২০১৯/ইকবাল

 

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ