October 18, 2019, 10:53 am

শিরোনাম :
সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামার এলাকায় সাঁওতাল ও বাঙ্গালীর বিক্ষোভ সমাবেশ কেশবপুরে বিদ্যুৎস্পৃৃষ্টে বিড়ল প্রজাতির ২টি কালোমুখো হনুমানের মৃত্যু জানাযা শেষে রাজশাহীর তানোর পৌর কেন্দ্রীয় কবরস্থানে সাংবাদিক রুহুল আমীন খন্দকারের মাতার দাফন সম্পুর্ণ অস্ত্রসহ ৭ মামলার আসামি শুটার লিটন ও তার সহযোগী লারা গ্রেফতার অস্ত্রসহ ৭ মামলার আসামি শুটার লিটন ও তার সহযোগী লারা গ্রেফতার বড় ভাই সেজে ঘুষখোর ভূমি কর্মকর্তাকে ধরলেন সাতক্ষীরার ডিসি মোস্তফা কামাল প্রভাবশালী নারীর তালিকায় রোহিঙ্গা জেসমিন-কাশ্মিরি পারভীনা পাঁচ স্ত্রী চালাতে ৫০ নারীর সঙ্গে প্রতারণা রাজশাহীতে বিজিবির গুলিতে বিএসএফ নিহত ফল-সবজির খোসা ব্যবহারের পদ্ধতি

চামড়ার দরপতনের সাথে জড়িতদের খুঁজছে সরকার: তথ্যমন্ত্রী

Spread the love

চামড়ার দরপতনের সাথে জড়িতদের খুঁজছে সরকার: তথ্যমন্ত্রী

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

এবার কোরবানির পশুর চামড়ার দরপতনের ‘খেলায় মেতে উঠা চক্রকে’ খুঁজে বের করতে সরকার সচেষ্ট বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাংবাদিক ফোরামের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় তিনি একথা জানান। বাংলাদেশে চামড়ার মোট চাহিদার বড় অংশই আসে কোরবানির পশু থেকে। এবার ঈদের দিন থেকেই সরকারের বেঁধে দেওয়া দামের চেয়ে কম দামে চামড়া কেনা হচ্ছে বলে অভিযোগ আসতে থাকে। আড়তদাররা চামড়া কেনা বন্ধ রাখলে সঙ্কট মারাত্মক আকার ধারণ করে। বিক্ষুব্ধ মৌসুমী ব্যবসায়ীরা অনেক চামড়া সড়কে ফেলে দেন। চামড়া শিল্প ধ্বংস করতে সরকার পরিকল্পিতভাবে এই পরিস্থিতি সৃষ্টি করে কাঁচা চামড়া রপ্তানির সুযোগ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ আসে বিএনপির কাছ থেকে। এর পরিপ্রেক্ষিতে হাছান মাহমুদ বলেন, দেশের পাট শিল্পকে ধ্বংস করেছে বিএনপি। আদমজী জুটমিল কারা বন্ধ করেছিল? বিপরীতে আওয়ামী লীগ সরকার আমলে চামড়া শিল্পে রপ্তানি বাড়ার চিত্র তুলে ধরে তিনি বর্তমান সঙ্কটের একটি চক্রকে দায়ী করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বেড়েছে, সেই হিসেবে ট্যানারির সংখ্যা বাড়েনি। এই সুযোগ নিয়ে একটি চক্র চামড়ার দরপতনের খেলায় নেমেছে। এই চামড়ার দরপতনের খেলায় যারা মেতেছে, সরকার তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। সভায় মন্ত্রী বলেন, গতকাল (গত শুক্রবার) এক আলোচনায় বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বাংলাদেশের পাট শিল্প ধ্বংসের জন্য নাকি আওয়ামী লীগ দায়ী। মির্জা ফখরুলের মিথ্যা শুনে আমার মনে হয় কবরের মধ্যে গয়েবলসও এখন লজ্জা পাচ্ছে। কারণ তাকেও মির্জা ফখরুল ছাড়িয়ে গেছেন। আদমজি জুট মিল বেগম খালেদা জিয়া বন্ধ করেছে। অন্য পাটকলগুলোও খালেদা জিয়া বন্ধ করেছিল। তিনি বলেন, ১৯৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দায়িত্ব পাওয়ার পর অনেকগুলো পাটকল চালু করেছিল। এমনকি পাটকলের মালিকানার অংশ শ্রমিকদের হাতে দেয়া হয়েছিল। আর মির্জা ফখরুল নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে নিজের মিথ্যা বলার রেকর্ড নিজেই ভাঙছেন। হাছান মাহমুদ বলেন, এবার ১৫ আগস্ট বেগম খালেদা জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে বিএনপি কেক কাটেনি। এ কেক না কাঁটা বিএনপি স্ব-প্রণোদিতভাবে করেনি। ১৫ আগস্ট ভুয়া জন্মদিনের কেক কাটার কারণে তারা যেভাবে জনগণের নিকট ঘৃণার পত্র হয়েছে এবং এ গর্হিত কাজের জন্য যে সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছে সেটা থেকে বাঁচার জন্য। তবে তারা ১৬ আগস্ট জন্মদিন পালন করেছে। অর্থাৎ ১৫ আগস্ট জন্মদিন ঠিক রেখে সেটা পরের দিন পালন করেছে। আমি বিএনপিকে অনুরোধ জানাব, দয়া করে আপনারা আপনাদের নেত্রীর জন্মের তারিখটা ঠিক করেন। যে দলের চেয়ারপার্সনের জন্মের তারিখ ঠিক নাই সে দল কীভাবে এগোতে পারে সেটাই আমার প্রশ্ন! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের চক্রান্তের সঙ্গে যারা জড়িত ছিল, তাদের খুঁজে বের করতে একটি কমিশন গঠনের দাবি জানান আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ। সভায় বক্তব্যে একই দাবি তোলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ স ম আরেফিন সিদ্দিক। তিনি বলেন, বিশ্বে অন্য রাষ্ট্র নায়কদের হত্যার ঘটনায় বিচারিক আদালতের পাশাপাশি কমিশন গঠন করে তা জনসম্মুখে প্রকাশ করা হয়। বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িত যারা পালিয়ে আছে, তাদের শাস্তি নিশ্চিত করা এবং জড়িতদের সকল তথ্য জনগণের সামনে উত্থাপন করার স্বার্থে দ্রুত কমিশন গঠন করা দরকার। ইকবাল সোবহান চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক আবদুস সবুর, বিএসএমএমইউয়ের উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, সাবেক মহাসচিব উমর ফারুক চৌধুরী, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদ, ডিইউজের সোধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী বক্তব্য রাখেন।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ