April 2, 2020, 1:32 pm

শিরোনাম :
প্রতি উপজেলার দুজনের নমুনা পরীক্ষার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় সাধারণ ছুটিতে ব্যাংক লেনদেনের সময় বাড়ল প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করুন,আমাদের সঙ্গে নয়-মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ইরান কাশ্মীরের বাসিন্দাদের সংজ্ঞা বদলে দিল নরেন্দ্র মোদির সরকার যুক্তরাষ্ট্রে মহামারী করোনাভাইরাসে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড  প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস- পুলিশ সদস্যদের বিনয়ী হতে বললেন আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বেড়ে ৫৬ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভলান্টিয়ার দিয়ে কাজ চালানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কেশবপুরের সড়ক দূর্ঘটনায় আহত আওয়ামীলীগ নেতা সাবেক চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম হাসপাতালে ২৫ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন একটি জরুরী ঘোষনা

চাঁদে পানি খুঁজবে নাসার রোবট

Spread the love

চাঁদে পানি খুঁজবে নাসার রোবট

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

চাঁদে পানি খুঁজতে রোবট পাঠানোর পরিকল্পনা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা নাসা। ২০২২ সালে চন্দ্রপৃষ্ঠে পাঠানো হবে রোভার জাতের গলফ কার্ট আকৃতির রোবটটিকে। সেখানে ‘ওয়াটার আইস’ খোঁজার দায়িত্ব নেবে ভাইপার নামের ওই রোবটটি।

প্রতিবেদনে রয়টার্স বলছে, চন্দ্রপৃষ্ঠে মাইলের পর মাইল শুধু পানির খোঁজে ঘুরে বেড়াবে ভাইপার। পরীা করে দেখবে সেখানে পৃষ্ঠের নিচে কোনো পানি জমে রয়েছে কিনা। চন্দ্রপৃষ্ঠে এই ‘ওয়াটার আইস’ থাকার বিষয়টি নিয়ে ক্রমাগত বলে আসছেন নাসা কর্মকর্তা জিম ব্রিডেনস্টাইন। তার মতে, ‘চাঁদে এভাবে লাখ লাখ টন পানি জমে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।’

‘ওয়াটার আইস’ ও ভাইপার প্রসঙ্গে ব্রিডেনস্টাইন বলেন, “চাঁদে মূলত কোথায় পানি রয়েছে সে বিষয়টি বুঝার চেষ্টা করবে ভাইপার। সে হিসেবে ‘ওয়াটার আইস’-কে কয়েকটি শ্রেণীতে ভাগ করে খনন কাজ চালানো হবে। কেন এটি জরুরি সে প্রশ্ন আপনি করতেই পারেন। এটি জরুরি, কারণ ‘ওয়াটার আইস’ প্রাণ রার মতো গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়ের ইঙ্গিত করে।” ভাইপার-এর পুরো নামটি হচ্ছে ‘ভলাটাইলস ইনভেস্টিগেটিং পোলার এক্সপ্লোরেশন রোভার।’

২০২২ সালের ডিসেম্বরে চাঁদের দণি মেরু অঞ্চলে নামবে ভাইপার। রয়টার্স বলছে, চাঁদের মাটি পরীা করে পানির মৌলিক উপাদান হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন-এর নমুনা খোঁজার জন্য সঙ্গে চারটি যন্ত্র রাখবে রোভারটি। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে অবস্থিত নাসা’র এমস রিসার্চ সেন্টার জানিয়েছে, সবমিলিয়ে নিজের কাজের ‘প্রায় একশ’ দিনের ডেটা’ নথিভুক্ত করবে রোবটটি যা পরবর্তীতে চন্দ্রপৃষ্ঠে থাকা পানির ম্যাপ হিসেবে ব্যবহৃত হবে।

উল্লেখ্য, ২০২৪ সাল নাগাদ পুনরায় চাঁদে মানুষ পাঠাতে চাইছে নাসা। এ জন্যই চন্দ্রপৃষ্ঠে পানি খুঁজে বের করার বিষয়টি নিয়ে এতো আগ্রহী সংস্থাটি।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ