August 13, 2019, 5:30 pm

চলন্ত বাসে ধর্ষণ ও হত্যা: ঢাকায় নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

Spread the love

চলন্ত বাসে ধর্ষণ ও হত্যা: ঢাকায় নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

চলন্ত বাসে এক সহকর্মীকে ধর্ষণের পর হত্যায় জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছেন ঢাকা নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানববন্ধন এবং প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে এই দাবি জানানো হয়। ঢাকা নার্সিং কলেজের স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার অরগানাইজেশন এই কর্মসূচির আয়োজন করে। সমাবেশে বক্তারা বলেন, এই ধর্ষণকারীদের বিচার না হলে ধর্ষণ চলতেই থাকবে। অরগানাইজেশনের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, দ্রুত কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করা না হলে কিংবা অপরাধীরা আইনের ফাঁকফোকর গলে পার পেয়ে গেলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার অরগানাইজেশনের সাধারণ সম্পাদক মমতা বানু, শিক্ষার্থী মো. রোমান হোসেন, আবুল বারাকাত অলি প্রমুখ।

কিশোরগঞ্জে প্রতিবাদ: চলন্ত বাসে নার্সকে ধর্ষণের পর হত্যার প্রতিবাদ ও বিচার দাবিতে কিশোরগঞ্জে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে বিভিন্ন সংগঠন। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালের সামনে জেলার নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে একটি মানববন্ধন কর্মসূচি পালন হয়। একই সময় শহরের কালীবাড়ি মোড়ে জেলা মহিলা পরিষদের উদ্যোগে আরেকটি মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। এছাড়া বেলা ১২টায় জেলা শহরের গৌরাঙ্গ বাজার এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে বাম গণতান্ত্রিক জোট। একই সময় কালীবাড়ি মোড়ে সমকাল সুহৃদ সমাবেশ ও আখড়া বাজার ব্রিজ এলাকায় সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। এর আগে গত বুধবার পাকুন্দিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের উদোগে মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হয়। এসব কর্মসূচিতে বক্তারা দ্রুত বিচারকাজ শেষ করে অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান। কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহমুদ পারভেজ, জেলার ডেপুটি সিভিল সার্জন মজিবুর রহমান, জেলা বিএমএর সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহাব বাদল, নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের জেলা সভাপতি আবদুস সালাম ভুঁইয়া মানববন্ধন চলাকালে একাত্মতা ঘোষণা করে বক্তব্য দেন। মহিলা পরিষদের কর্মসূচিতে জেলার নারীনেত্রী আইনজীবী মায়া ভৌমিক, সুলতানা রাজিয়া, বিলকিস বেগম বক্তব্য দেন। বাসদের জেলা সমন্বয়ক শফিকুল ইসলাম, সিপিবির সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক, তেল, গ্যাস, বিদ্যুৎ, বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির জেলা সদস্যসচিব আবুল হাশেম, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রর সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান রুমী, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম শাহজাহান, সিপিবি শহর শাখার সভাপতি হাসান ইমাম রঞ্জু তাদের কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন। রাজধানী ঢাকা থেকে স্বর্ণলতা পরিবহনের একটি বাসে করে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদিতে বাড়ি ফিরছিলেন ২৩ বছর বয়সী ওই নার্স। রাত পৌনে ১১টার দিকে তাকে জামতলী এলাকায় কিশোরগঞ্জ-ভৈরব সড়কের পাশ থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে এলাকাবাসী। কটিয়াদি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তাকে দলবেঁধে ধর্ষণের পর চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেওয়া হয় বলে পরিবারের অভিযোগ। তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে কাজ করতেন। জেলার সিভিল সার্জন হাবীবুর রহমান ময়নাতদন্ত শেষে গত বুধবার সাংবাদিকদের বলেন, তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ধস্তাধস্তির কারণেই এটা হয়েছে। তাছাড়া রক্তক্ষরণ ও অন্যান্য আলামত দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তাকে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে তার বাবা বাদী হয়ে পাঁচজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে বাজিতপুর থানায় মামলা করেন। গত বুধবার পর্যন্ত পুলিশ এ ঘটনায় মোট পাঁচজনকে আটক করে। তাদের সবাইকে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। আসামিরা হলেন বাসচালক নূরুজ্জামান, চালকের সহকারী লালন মিয়া এবং রফিকুল ইসলাম রফিক, খোকন মিয়া ও বকুল মিয়া নামে তিন ব্যক্তি।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ