July 9, 2020, 11:34 pm

শিরোনাম :
র‌্যাবের পৃথক তিন অভিযানে এক নারীসহ পাঁচ মাদক কারবারি আটক র‌্যাব-৫ এর পৃথক দু’টি অভিযানে হেরোইন ও ইয়াবাসহ ০২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ভারতে ফিরতে বাংলাদেশে আটকে পড়াদের অশ্রুসিক্ত আকুতি’ চাঁপাইনবাবগঞ্জেই রয়েছে প্রায় ৩’হাজার বক‌শিগঞ্জ শিক্ষক নেতার হা‌তে ১ প্রতিবন্ধী মার‌ধো‌রের শিকার শৈলকুপায় প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্পের আওতায় ঘর বরাদ্দে দুর্নীতির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন কেশবপুরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দিয়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেশবপুর শাখার নেতৃবৃন্দের শ্রদ্ধা নিবেদন এক কোন বর্বরতা” প্রতিবন্ধী যুবক কে পিটিয়ে জখম মহিপুরে সরকারী চাল জব্দ নিয়ে স্থানীয়দের ক্ষোভ সুন্দরগঞ্জে রাস্তা সংস্কারে চমক নাটোরে গরুর ধাক্কায় বিকল আন্তনগর কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস
ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম বন্দরে সেই ২০১৫ সালের কোকেন চোরাচালান মামলায় চার্জশিট দিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাব

Spread the love

মোঃ শাহাদত হোসেন,চট্রগ্রাম বিভাগীয় প্রধানঃ

ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম বন্দরে ২০১৫ সালে কোকেনের চালান আটকের বহুল আলোচিত ঘটনায় চোরাচালান আইনে দায়ের করা মামলায় চার্জশিট দিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।গতকাল ২৯ জুন ২০২০ ইং তারিখ সোমবার বিকালে চট্টগ্রামের মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের প্রসিকিউশন শাখায় জমা দেয়া চার্জশিটে ১০ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।এদের মধ্যে ৪ জন পলাতক, ১ জন জামিনে ও ৫ জন কারাগারে রয়েছেন বলে জানা গেছে।
একই ঘটনায় মাদক আইনে দায়ের হওয়া অপর মামলায় ২০১৭ সালের ২ এপ্রিল আদালতে অধিকতর তদন্তের চার্জশিট দাখিল করে র‌্যাব।মামলাটি বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।ওই মামলার ১০ আসামির সবাইকে চোরাচালন মামলায়ও আসামি করা হয়েছে।তবে চোরাচালান মামলার তদন্তে আরও নতুন কিছু তথ্য উঠে এসেছে বলে জানিয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাবে কর্মরত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী।
তিনি জানান, গতকাল ২৯ জুন ২০২০ ইং তারিখ সোমবার চট্টগ্রামের মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের প্রসিকিউ শন শাখায় কোকেন চোরাচালান মামলার চার্জশিট জমা দেয়া হয়েছে।মাদক আইনে এর আগে যে ১০ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছিল, এই মামলাতেও তাদেরই অভিযুক্ত করা হয়েছে।তবে বলিভিয়া থেকে কোকেনের চালানটি বাংলাদেশে আসা পর্যন্ত কিছু নতুন তথ্য এতে উঠে এসেছে।
কোকেন চোরাচালান মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- খানজাহান আলী লিমিটেডের মালিকানাধীন প্রাইম হ্যাচারির ব্যবস্থাপক গোলাম মোস্তফা প্রকাশ সোহেল (৩৯), খানজাহান আলী লিমিটেডের চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ (৪৯), আবাসন ব্যবসায়ী মো. মোস্তফা কামাল (৪২), সিকিউরিটিজ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা মো. মেহেদী আলম (৩১), গার্মেন্টস পণ্য রফতানিকারক প্রতিষ্ঠান মন্ডল গ্রুপের বাণিজ্যিক নির্বাহী মো. আতিকুর রহমান (২৯), কসকো শিপিং লাইনের ম্যানেজার এ কে এম আজাদ (৪৮), সিএন্ডএফ কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম (৩২), খানজাহান আলী গ্রুপের পরিচালক মোস্তাক আহাম্মদ খান (৪৫), লন্ডনে অবস্থানরত ফজলুর রহমান (৩৫) ও মো. বকুল মিয়া (৩১)।
২০১৫ সালের ৭ জুন চট্টগ্রাম বন্দরে একটি কনটেইনার আটক করে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতর।খান জাহান আলী লিমিটেডের নামে আমদানি করা হয় কনটেইনারটি।কনটেইনার খুলে ১০৭টি ড্রাম থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরে ঢাকার বিসিএসআইআর ও বাংলাদেশ ড্রাগ টেস্টিং ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষায় ২ টি ড্রামে ৩৭০ লিটার তরল কোকেনের অস্তিস্ত্ব ধরা পড়ে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/৩০ জুন ২০২০ /ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ