June 21, 2019, 5:10 pm

শিরোনাম :
জগন্নাথপুরে মেধাবৃত্তি বিতরণ করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌর শহরে দীর্ঘ বাঁশের সাঁকো জন ভোগান্তি চরমে কেশবপুরে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কেশবপুরে মহিলাদের আত্তকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষে উদ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ উদ্বোধন কেশবপুরে ৪ টি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটি ও পৌর আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা সুন্দরগঞ্জে গ্রাম পুলিশ গ্রেফতার জর্দানে কুরআন প্রতিযোগিতায় বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হাফিজ সাইফুর রহমান ত্বকি রাজশাহীর জেলা বিএনপির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তানোরে পূর্বের কমিটি বাতিল করে নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন ঘোড়াঘাটে সড়ক দূর্ঘটনায় আম ব্যবসায়ী নিহত ১৮ বছরের নিচে কোন মেয়েকে বিবাহ দেওয়া মানে তাকে হাত- বেঁধে কুপের মাঝে ফেলে দেওয়া-বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার

গ্যাসের জন্য হচ্ছে প্রি-পেইড মিটার, বাড়ছে দামও

Spread the love

গ্যাসের জন্য হচ্ছে প্রি-পেইড মিটার, বাড়ছে দামও

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

গ্যাস সরবরাহের সব পুরনো লাইন তুলে নতুন লাইন বসানো এবং সব মিটার প্রি-পেইড করার পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে বিদ্যুৎ, জ¦ালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাবও মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন- বিইআরসির কাছে দেওয়া হয়েছে। সচিবালয়ে গতকাল রোববার সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেছেন বিদ্যুৎ, জ¦ালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। তিনি বলেন, বাসাবাড়ি ও আবাসিক ক্ষেত্রে গ্যাস ব্যবহার আমরা নিরূৎসাহিত করছি। আমরা একটা বড় প্রকল্প নিচ্ছি ঢাকা শহরসহ সকল জায়গায় পুরনো গ্যাস লাইন উঠিয়ে নতুন লাইন করব, সেখানে প্রি-পেইড মিটার বসাব।

দুই লাখ গ্যাসের মিটার সংযোগ গেছে। আমরা আবেদন করেছি জাইকাকে সহযোগিতা করার জন্য, প্রি-পেইড গ্যাস মিটার বাসাবাড়িতে ব্যাপকভাবে একশ পারসেন্ট দেওয়া যায় কিনা, সেটার ব্যবস্থা আমরা নিতে যাচ্ছি। এক প্রশ্নে প্রতিমন্ত্রী গ্যাসের সব মিটার দ্রুতই প্রি-পেইড করার ব্যাপারে আশা প্রকাশ করেন। এদিকে গত বছর তোড়জোড় শুরু করেও ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে গ্যাসের দাম বাড়ানার পথ থেকে সরেছিল সরকার। তবে ভোটের পর বিভিন্ন বিতরণ কোম্পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব নিয়ে বিইআরসি গণশুনানি করে, যার সবগুলোতেই দাম বাড়ানোর বিরোধিতা আসে। বিষয়টি আদালতেও গড়ায়। গ্যাসের দাম সমন্বয়ের পক্ষে নিজের বক্তব্য তুলে ধরে প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, গ্যাসের দামটা সমন্বয় করা দরকার, আমি বারবার বলে আসছি।

বার্ককে (বিইআরসি) আমরা গ্যাসের দামের বিষয়টি সাবমিট করেছি। এখন সম্পূর্ণ বার্কের ওপর নির্ভর করছে তারা গ্যাসের দাম সমন্বয় করবে কিনা? প্রাইস সমন্বয়ের জন্য আমরা গত বছর থেকে অপেক্ষায় আছি। শিল্প ও গৃহস্থলী উভয় ক্ষেত্রে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব মন্ত্রণালয় দিয়েছে জানিয়ে জ¦ালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, সব জায়গায় কিছুটা সমন্বয়ের জন্য বলেছি। আমরা গত বছরের অগাস্ট মাস থেকে এলএনজি আমদানি শুরু করেছি। ১০০ এমএমসিএফ (মিলিয়ন ঘনফুট), ২০০ এমএমসিএফ, ধারাবাহিকভাবে বৃদ্ধি করেছি। এই গ্যাসের মূল্য আমাদের নিজস্ব গ্যাসের চেয়ে অনেক বেশি। সরকার নিজস্ব গ্যাসের ওপর প্রচুর পরিমাণ সাবসিডি (ভর্তুকি) দেয়। গ্যাসে বছরে ছয় হাজার কোটি টাকার মত সাবসিডি দেওয়া হয়। তিনি বলেন, গ্যাসে আমরা ১৪ হাজার কোটি টাকার মত ব্যয় করে ফেলেছি।

এখন সামনে আরও ১৪ হাজার কোটি টাকা লাগবে। এই টাকাটা আসবে কোথা থেকে? গ্রাহকের কাছ থেকে তো আগের দামে সেই টাকা আসছে না। সুতরাং যদি সমন্বয় না করা হয়, সেক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দেবে। বার্ক সরকারের চাহিদামত দাম সমন্বয় করলেও ভর্তুকি দিতে হবে জানিয়ে জ¦ালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, সমন্বয় না করলে সরকারকে চলতি অর্থবছরে পাঁচ থেকে ছয় হাজার কোটি টাকা দিতে হবে। এক প্রশ্নে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা টার্গেট অনুযায়ী এগোচ্ছি, কারণ টার্গেট থেকে আমরা অতিরিক্তই থাকব এবারও বিদ্যুতে। আমাদের টার্গেট হল ২১ সাল ধরে তারপর ৩০ সাল।

বিদ্যুৎ ও জ¦ালানি খাতের ২০৪১ সালের প্ল্যানটা আমরা করে ফেলেছি। ভবিষ্যতের জন্য মাতারবাড়িতে ল্যান্ড বেইজ টার্মিনাল এবং ল্যান্ড বেইজ এলপিজি টার্মিনাল- দুটি পোর্ট হলে গ্যাসের ক্ষেত্রে দাম অনেক সাশ্রয়ী হবে। এলপিজিও সাশ্রয়ী মূল্যে আমরা বাজারে দিতে পারব। এটা করতে সময় লাগবে। ৪/৫ বছর সময় লাগবে এই ধরনের ডিপ সি টার্মিনাল করতে। কোল টার্মিনাল করতে বেসরকারিভাবে জাপানের কোম্পানির সঙ্গে একটি চুক্তি হয়েছে জানিয়ে বিপু বলেন, আমরা মাতারবাড়িতে একটি কোল টার্মিনাল করতে চাই। কয়লা এনে ওখানে রাখা হবে, ওখান থেকে বিভিন্ন জায়গায় যাবে। এটা নির্মাণের ফিজিবিলিস্টি স্টাডি হয়েছে। মাতারবাড়িতে এক্সটেনশন প্রজেক্ট করার জন্য জাপান আরও দুই বিলিয়ন ডলার দেবে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ