July 15, 2019, 7:50 pm

গুলশানে ট্রাফিক আইন লংঘন এবং শব্দ দূষণ প্রতিরোধে সচেতনতামূলক কর্মসূচি

Spread the love

মোহাম্মদ ইকবাল হাসান সরকারঃ

আজ ১১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ট্রাফিক আইন লংঘন এবং শব্দ দূষণ

প্রতিরোধের বিষয়ে, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ ট্রাফিক (উত্তর) ও গুলশান

সোসাইটির যৌথ উদ্যোগে এবং ও’ ন্যাচারাল-এর পৃষ্ঠপোষকতায় গুলশানে একটি

জনসচেতনতা কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়।রাজধানীর গুলশান-২ গোল চত্ত্বরে এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন, গুলশান সোসাইটির প্রেসিডেন্ট সাখাওয়াত আবু খায়ের মোহাম্মদ, সেক্রেটারী জেনারেল ব্যারিস্টার শুক্লা সারওয়াত সিরাজ, ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট কমিটির প্রধান শায়ান সেরাজ, ডিসি ট্রাফিক প্রবীর কুমার রায়, অতিরিক্ত ডিসি জাকির হোসেন, অতিরিক্ত কমিশনার মইন ইসলাম,ট্রাফিক কমিটির প্রধান আনিস জামান প্রমুখ।গুলশান সোসাইটির সেক্রেটারী জেনারেল ব্যারিস্টার শুক্লা সারওয়াত সিরাজ বলেন, ঢাকা শহরে গড় শব্দ মাত্রা ৮০ থেকে ১১০ ডেসিবল। যা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্ধারিত মাত্রার দ্বিগুণেরও বেশি। এই শব্দ দূষণ সম্পর্কেও জনসচেতনতা জরুরি। তিনি আরও বলেন, ট্রাফিক আইন লংঘনের কারনে প্রতিদিনই প্রাণহানির ঘটনা ঘটছে। এই দু:সহ পরিস্থিতি থেকে জনগণ মুক্তি চাই।ট্রাফিক পুলিশের ডিসি (নর্থ) প্রবীর কুমার রায় বলেন, ট্রাফিক আইন মেনে চলা শুধু চালকের দায়িত্ব নয়, গাড়ির মালিক,পথচারী এবং যাত্রী সকলেরই দায়িত্ব রয়েছে।রহিম আফরোজ,এবিসি রিয়েল এস্টেট, এলিট গ্রুপ, পাঠাও এবং প্যারামাউন্ট গ্রুপের কর্মিরা এ কর্মসূচিতে অংশ নেন।অকারনে হর্ণ বাজানো , ট্রাফিক আইন ও শব্দদূষণ সম্পর্কিত সচেতনতা মূলক বিভিন্ন লিফলেট গাড়িচালক ও পথচারীদের মধ্যে বিতরণ করা হয়।
সচেতনতা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মানববন্ধন এবং কার র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। সচেতনতা কার্যক্রমে বিপুল সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক ও এলাকাবাসী অংশগ্রহণ করেন।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/ ১১ এপ্রিল ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ