October 15, 2019, 9:14 pm

গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা: লিজার স্বামী গ্রেফতার

Spread the love

গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা: লিজার স্বামী গ্রেফতার

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

রাজশাহীতে গায়ে কেরোসিন ঢেলে কলেজছাত্রী লিজা রহমানের আত্মহননের প্ররোচণার মামলায় তার স্বামী সাখাওয়াত হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রাবর ভোররাতে গোমস্তাপুর থানার লক্ষ্মীনারায়নপুর গ্রাম থেকে পুলিশ সাখাওয়াতকে গ্রেফতার করে বলে পুলিশ জানায়। রাজশাহী নগর পুলিশের শাহমখদুম থানার ওসি মাসুদ পারভেজ বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে অবস্থান সনাক্ত করে গত বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার লক্ষ্মীনারায়নপুর গ্রামে তার বোনের বাড়ি থেকে সাখাওয়াতকে (১৯) গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি। রাজশাহী মহিলা কলেজের বাণিজ্য বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী লিজা পরিবারের কাছে গোপন রেখে গত ২০ জানুয়ারি রাজশাহী সিটি কলেজের ছাত্র সাখাওয়াত হোসেনকে বিয়ে করেন। বিয়েটি ছেলের পরিবার মেনে না নিলে তাদের সংসারে কলহ শুরু হয়। লিজা গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় এবং তার স্বামী সাখাওয়াতের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার খাজুরা থান্দুরা গ্রামে। গত ২৮ সেপ্টেম্বর শাহমখদুম থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দিতে যান তিনি। সেখান থেকে বেরিয়ে থানার গেটে থেকে ১০০ গজ দূরে মহিলা টিটিসির গেটের সামনে নিজের গায়ের কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন তিনি। অভিযোগ দিতে গিয়ে থানা বেরিয়ে এসেই কেন লিজা আত্মহত্যার চেষ্টা চালাল তা তদন্ত করতে দুইটি তদন্ত কমিটি করেছে পুলিশ ও মানবাধিকার। গায়ে আগুন দেবার পর প্রথমে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলেও রাতেই তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নেওয়া হয়। শরীরের ৬৩ শতাংশ দগ্ধ লিজা বুধবার ভোরে মারা যান। এ ঘটনায় গত বুধবার রাতে লিজার বাবা আলম মিয়া বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় লিজার স্বামী সাখাওয়াত হোসেন, শ্বশুর মাহাবুবুল আলম খোকন এবং শ্বাশুড়ি নাজনিন বেগমকে আসামি হয়। মামলার পর আসামিদের গ্রেফতার করতে পুলিশের অভিযান শুরু হয় বলে জানান ওসি।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ