July 9, 2020, 10:47 pm

শিরোনাম :
র‌্যাবের পৃথক তিন অভিযানে এক নারীসহ পাঁচ মাদক কারবারি আটক র‌্যাব-৫ এর পৃথক দু’টি অভিযানে হেরোইন ও ইয়াবাসহ ০২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ভারতে ফিরতে বাংলাদেশে আটকে পড়াদের অশ্রুসিক্ত আকুতি’ চাঁপাইনবাবগঞ্জেই রয়েছে প্রায় ৩’হাজার বক‌শিগঞ্জ শিক্ষক নেতার হা‌তে ১ প্রতিবন্ধী মার‌ধো‌রের শিকার শৈলকুপায় প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্পের আওতায় ঘর বরাদ্দে দুর্নীতির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন কেশবপুরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দিয়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেশবপুর শাখার নেতৃবৃন্দের শ্রদ্ধা নিবেদন এক কোন বর্বরতা” প্রতিবন্ধী যুবক কে পিটিয়ে জখম মহিপুরে সরকারী চাল জব্দ নিয়ে স্থানীয়দের ক্ষোভ সুন্দরগঞ্জে রাস্তা সংস্কারে চমক নাটোরে গরুর ধাক্কায় বিকল আন্তনগর কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস

কৃষক পর্যায়ে রাজাহীর তানোরে নূর মোহাম্মদের ক্ষেতে ৩৭ প্রকারের নতুন ধান উদ্ভাবন!

Spread the love

রুহুল আমীন খন্দকার, ব্যুরো প্রধান :

রাজশাহী জেলার তানোর উপজেলার গোল্লাপাড়া গ্রামের নূর মোহাম্মদ একজন প্রগতিশীল ও উদ্ভাবনী ক্ষমতাসম্পন্ন কৃষক। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ অক্লান্ত পরিশ্রম ও একাগ্রতার সঙ্গে গবেষণা করে উদ্ভাবন করেছেন ধানের আউশ, আমন ও বোরো ধানের বিভিন্ন সারি। উদ্ভাবিত সারিগুলোর জীবনকাল অন্যান্য জাতের তুলনায় কম, উচ্চ ফলনশীল, সরু, সুগন্ধি ও খরা সহিষ্ণু। খরা প্রবণ বরেন্দ্র অঞ্চল ও বিভিন্ন কৃষি পরিবেশ অঞ্চলে চাষের উপযোগী।তিনি জাতের উন্নতি ঘটিয়ে ধানের জীবনকাল কমিয়ে এনেছেন। এতে ফসলে পানির প্রয়োজনীয়তা কম লাগে এবং ফসল বিপর্যয় থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। খরা পীড়িত বরেন্দ্র অঞ্চলে কীভাবে কম পানিতে কম সময়ে ধান কেটে ঘরে তোলা যায় এ নিয়ে গবেষণা কার্যক্রম চলামান রয়েছে। কৃষিক্ষেত্রে নিত্য নতুন প্রযুক্তি মাঠ পর্যায়ে দ্রুত বাস্তবায়ন করেন এবং এলাকার কৃষকদের মাঝেও নিত্য নতুন প্রযুক্তি বিস্তারে সহায়ক ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। কৃষক পর্যায়ে ধানের নতুন নতুন সারি উদ্ভাবন করায় এলাকার কৃষকরা বিভিন্ন মৌসুমে নতুন নতুন দেশি-বিদেশি উন্নত জাতের ধানের অবস্থা তাদের নিজ এলাকায় দেখার সুযোগ পেয়েছে। তারা তাদের পছন্দের জাত সমূহ চিহ্নিত করে বীজও সংগ্রহ করতে পেরেছে। সে জন্য এলাকায় উফশী জাতের সম্প্রসারণ ত্বরান্বিত হয়েছে। এলাকার কৃষকরা তার প্রযুক্তিতে চাষ করে লাভবান হচ্ছেন। খরা সহিষ্ণু সারিগুলোর জীবনকাল কম হওয়ায় প্রাকৃতিক দুর্যোগ শুরুর আগেই ধান কেটে ঘরে তোলা যাবে। আগাম ওঠার কারণে সেচের খরচ কম হবে ভালো বাজার মিলবে। সে কারণে সারিগুলো বরেন্দ্র অঞ্চলের জন্য উপযোগী।নূর মোহাম্মদ কৃষি পরিষেবা ফার্মে গবেষণা প্লটের ৩৭টি সারির মধ্যে এন.এম.কে.পি ১০৫-৫-২, এন.এম.কে.পি ১০৪-৪-৩, এন.এম.কে.পি ১০৩-৩-২-২ সুগন্ধিযুক্ত, ব্রিধান-৮১, জিরাশাইল জাতের ধান কর্তন করা হয়। কর্তন, মাড়াই ঝাড়াই শেষে শুকনা ওজনে এন.এম.কে.পি ১০৫-৫-২ সারি হেক্টর প্রতি ৯.৮ মেঃ টন বিঘা প্রতি ৩২ মন। এন.এম.কে.পি ১০৪-৪-৩ সারি হেক্টর প্রতি ৮.৯ মেঃ টন বিঘা প্রতি ২৯ মন। এন.এম.কে.পি ১০৩-৩-২-২ সারি হেক্টর প্রতি ৭.৯ মেঃ টন বিঘা প্রতি ২৬ মন। ব্রিধান-৮১ হেক্টর প্রতি ৮.৪ টন বিঘা প্রতি ২৮ মন। জিরাশাইল হেক্টর প্রতি ৭.৯ মেঃ টন বিঘা প্রতি ২৬ মন ফলন পাওয়া যায়।এবারে ধান কর্তনের সময় উপস্থিত ছিলেন ড. আমিনুল ইসলাম, চিফ সাইন্টিফিক অফিসার ও প্রধান ব্রি আঞ্চলিক কার্যালয়, রাজশাহী। হারুন অর রশিদ ঊর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, ব্রি রাজশাহী। তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুশান্ত কুমার মাহাতো, উপজেলা কৃষি অফিসার শামিমুল ইসলাম, তানোর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাকিবুল হাসান, উপজেলা পরিসংখ্যান অফিসার রেহেনা পারভীন ও অত্র এলাকার কৃষকবৃন্দরা।

ডিটেকটিভ/৩১ মে ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ