October 13, 2019, 11:07 pm

কুয়াকাটায় পৌর কাউন্সিলর ও ঠিকাদারের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

Spread the love

 

পটুয়াখালী প্রতিনিধি॥ কুয়াকাটা পৌরসভার কাউন্সিলর ও পায়রা বন্দরের এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ করেছেন সাউথ বীচ হোটেলের মালিক মোহসীন উদ্দিন সোহেল। এ ঘটনায় সাউথ বীচ হোটেলের কেয়ার টেকার আনোয়ার হোসেন মহিপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। তবে জমি দখলের কথা অস্বীকার করেন কাউন্সিলর মো.শাহ আলম হাওলাদার।
আবাসিক হোটেল সাউথ বীচ’র মালিক মোহসীন উদ্দিন সোহেল অভিযোগ করেন, কুয়াকাটা পৌর সভার ৩নং ওয়ার্ডে অবস্থিত তার মালিকানাধীণ আবাসিক হোটেল সাউথ বীচ এর ১ একর জমি ভূমি দস্যু তোফাজ্জেল ঘরামী, ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিল মো. শাহ আলম হাওলাদার ও পায়রা বন্দরের ঠিকাদার মো. শাহিন মৃধা সহ আরো কয়েকজন মিলে অবৈধ ভাবে দখল করার পায়তারা চালাচ্ছে। এরই মধ্যে কাউন্সিলরের নেতৃত্বে ওই বিরোধীয় জমিতে স্থাপনা নির্মানের কাজ শুরু করেছে। বাধা দেয়ার পরও জোরপুর্বক কাজ করছে তারা। সোহেল আরো বলেন, এই জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। মামলা নিস্পত্তি হওয়ার আগেই প্রভাব খাটিয়ে বিরোধীয় জমি দখল করেছে।
ঠিকাদার শাহিন মৃধা বলেন, তার বিরুদ্ধে জমি দখলের মিথ্যা একটি অভিযোগ থানায় দিয়েছেন সাউথ বীচ হোটেল কর্তৃপক্ষ। বিভাগীয় কমিশনার এবং জেলা প্রশাসনের অনুমোদণ সাপেক্ষে ভোগদখলীয় মালিকের কাজ থেকে ৫৯ শতাংশ জমি তিনি সহ কয়েকজন বন্ধু মিলে কবলা সুত্রে ক্রয় করেছেন। ভোগদখলীয় মালিকের নামে হাল দাখিলা, বিএস জরিপ সহ অন্যান্য কাগজপত্র বিশ্লেষন করে সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ রেজিস্ট্রি দলিল করার অনুমোদন দিয়েছেন। শাহিন মৃধা দাবী করেন তার ক্রয়কৃত জমিতে তিনি সংস্কার কাজ করছেন। তিনি আরো জানান, ওই সম্পত্তি আগে থেকেই বাউন্ডারী ওয়াল দিয়ে ঘেরা। সাউথ বীচ হোটেল বাউন্ডারী ওয়ালের বাহিরে।
এ বিষয়ে ৩ং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র মো. শাহ আলম হাওলাদার তার বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট দাবী করে বলেন, প্রকৃত জমির মালিকের কাছ থেকে শাহিন মৃধা ক্রয় সুত্রে জমির মালিক। সংশ্লিষ্ঠ ওয়ার্ড কাউন্সিলর হওয়ায় জমির নতুন মালিকরা মাপঝোপ করার সময় তার সহযোগিতা চান। তারই প্রেক্ষিতে তিনি মাপঝোপের সময় উপস্থিত ছিলেন। বিক্রি ও ক্রয় সুত্রে জমির মালিকানা পরিবর্তন হয়েছে। কেউ কারও জমি দখল করেনি।
এ ব্যাপারে মহিপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো. সোহেল আহম্মেদ বলেন, সাউথ বীচ হোটেল কর্তৃপক্ষ একটি অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ