September 19, 2019, 11:18 pm

শিরোনাম :
ভোলা লালমোহনে নাতনীর সাথে অসামাজিক কাজের চেষ্টা,এবং দাদা আটক কেশবপুরে অধ্যক্ষের দূর্ণীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় মাদ্রাসা প্রভাষককে মারপিট নগদ অর্থ ও মোবাইল ছিনতাই সুন্দরগঞ্জে পোনা মাছ অবমুক্ত করণ ২০ হাজার মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে পায়রা বন্দরে নোঙর করেছে জাহাজ এমভি ঝিং হাই টং-৮ আলফাডাঙ্গায় আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা লালপুরে ডাকাতির নাটক সাজাতে গিয়ে বিকাশ কর্মীসহ আটক ২ লতিফিয়া ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও সংবর্ধনা সম্পন্ন সহকারী শিক্ষকদের ১১ তম ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ তম গ্রেডের দাবিতে আলফাডাঙ্গায় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মানব বন্ধন শৈলকুপা পৌর ভবন থেকে বিপুল পরিমান ভিজিএফ’র চাউল জব্দ শৈলকুপায় প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডের দাবিতে মানববন্ধন

কুড়িগ্রাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১৫ ডেঙ্গু রোগী

Spread the love

মোঃ রেজাউল হক,রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ১৫ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিয়েছে গতকাল পর্যন্ত। ইতোমধ্যে ৪ জনকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানের হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে ১১ জন ডেঙ্গু রোগী। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত সকলে কেউ ঢাকা থেকে এসেছেন কেউ ঢাকায় থাকেন। এদের মধ্যে দুইজন ঢাকাতেই পরীক্ষা নিরীক্ষা পর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট পেয়ে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে এসে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাকী ১৩ জন ঢাকা থেকে ফিরে কুড়িগ্রামে পরীক্ষা নিরীক্ষা করার পর তাদেরও ডেঙ্গু ধরা পড়লে হাসপাতালে চিকিৎসা শুরু করেন।কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল সুত্র জানান, ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবেলায় হাসপাতালের কার্ডিওলজি ওয়ার্ডের একটি কক্ষে ডেঙ্গু কর্ণার খোলা হয়েছে। এই কর্ণারে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।এ ছাড়াও হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের পরীক্ষার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা থাকলেও পরীক্ষার কিডস এর স্বল্পতা রয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সদর উপজেলার কাঠালবাড়ি ইউনিয়নের মামুন জানান, সে ঢাকা পলিটেকনিক এর তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। বাড়িতে আসার পর সে জ্বরে আক্রান্ত হয়। গত বুধবার কুড়িগ্রামের একটি ক্লিনিকে পরীক্ষা করে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। জেলা শহরের পাওয়ার হাউজ পাড়ার আরিফুল ইসলাম (২৮) জানান, ঢাকায় আইসিটিতে প্রশিক্ষনরত ছাত্র সে। গত ৪ দিন আগে বাড়িতে আসে। এরপর জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত ৩০ জুলাই কুড়িগ্রামে পরীক্ষার পর ডেঙ্গু ধরা পড়ায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।কুড়িগ্রাম পৌর মেয়র আব্দুল জলিল জানান, আমাদের পৌরসভায় কোন ফগার মেশিন ছিল না। তিনটি ফগার মেশিন ঢাকা থেকে এনে সদর হাসপাতাল চত্বর থেকেই মশা নিধনের ঔষুধ ছিটানোর কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এটা পর্যায়ক্রমে পৌরসভার সকল এলাকায় ছিটানো হবে।কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা: আবু মোঃ জাকিরুল ইসলাম জানান, হাসপাতালে এ পর্যন্ত ১৫ জন ডেঙ্গু রোগী এসেছে। এদের মধ্যে দুইজনকে রেফার্ড করা হয়েছে। হাসপাতালে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে ১১জন ।
 প্রাইভেট ডিটেকটিভ/৩০ আগস্ট ২০১৯/ইকবাল
Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ