January 23, 2020, 2:54 am

শিরোনাম :
জাতীয় শ্রমিক’লীগ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে শিবগঞ্জের অবৈধ কমেটি শার্শার অগ্রভুলোট সীমান্তে বি এস এফের পিটুনিতে বাংলাদেশী যুবক নিহত বন্ধুর বাড়ীতে বেড়াতে এসে হাতির আক্রমনে নরসিংদীর যুবকের মৃত্যু সাগরদাড়ী শুরু হয়েছে মাইকেল মধুসূদন দত্তের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মধুমেলা সারিয়াকান্দিতে মরহুম আব্দুল মান্নান এমপির কবর জিয়ারত করলেন-জেলা পুলিশ সুপার তাহিরপুর ও জামালগঞ্জ উপজেলার হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ পরিদর্শন বগুড়া সদরের পাঁচবাড়ীয়া দাখিল পরীক্ষার্থী ছাত্র-ছাত্রীদের বিদায় অনুষ্ঠান প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ৫৩ কর্মচারীকে চাকুরীচ্যুতির প্রতিবাদে সমাবেশ ও স্মারকলিপি প্রদান অরফান ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের কম্বল বিতরণে ভাইস চেয়ারম্যান কয়েছ মৌলভীবাজার সদর সোনারবাংলা আদর্শ ক্লাবের দশ বছর উপলক্ষে ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন

এমপি মহিবের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে কুয়াকাটায় সাংবাদিক সম্মেলন

Spread the love

আনু আনোয়ার,পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালী ৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মহিববুর রহমান মুহিব’র বিরুদ্ধে জমি দখলের অপপ্রচারের প্রতিবাদ জানিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে কুয়াকাটা পৌর সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি মো. শহিদ দেওয়ান। কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মো. নাসির উদ্দিন বিপ্লবের সভাপতিত্বে সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কুয়াকাটা পৌর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি গাজী মোঃ ইউসুফ আলী, আঃ খালেক খাঁন, আওয়ামী লীগ নেতা আনোয়ার হাওলাদার, মহিপুর থানা শ্রমিক লীগ সভাপতি আবুল কালাম ফরাজী, পৌর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক তাইফুর রহমান হাসান, আওয়ামী লীগ নেতা আঃ গফফার মুন্সী, বজলুল হক খাঁন প্রমুখ।লিখিত বক্তব্যে শহিদ দেওয়ান বলেন, গত ২১ আগষ্ট দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকার প্রথম পাতায় “সাংসদ মহিববুরের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। সংবাদটি আদৌ সত্য নয়। সাংসদ মুহিব কারো জমি দখল করেনি। সংবাদে যে জমি দখলের কথা উল্লেখ করা হয়েছে ওই জমির ক্রয় সুত্রে মালিক তিনি। যা এমপির নামে বিএস জরিপও করা হয়েছে। যার বিএস খতিয়ান নং-১২৫৮। একটি কুচক্রি মহল রাজনৈতিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য তার নামে এমন মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে। শহিদ দেওয়ান আরো বলেন, দীর্ঘ ২৭ বছর পূর্বে ৮০ শতাংশ জমি ক্রয় করে ভোগদখল করে। যা স্থানীয়রা সকলেই অবগত রয়েছে।লিখিত বক্তব্যে তিনি পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদটি হাস্যকর, মিথ্য বানোয়াট ও ভিত্তিহীন দাবী করে বলেন, এমপি মুহিবের নির্মাণ করা ঘরের দেখভালের দায়িত্বে থাকা জনৈক অনন্ত মুখার্জী নামক ব্যক্তি কেয়ারটেকার হিসেবে নিযুক্ত করা হয়। পরবর্তীতে অনন্ত মুখার্জী সরলতার সূযোগে এমপি মহোদ্বয়ের জমি নিজের বলে দাবী করেন। পত্রিকায় উল্লেখ করা হয়েছে অনন্ত মুখার্জী ৪০ বছর আগে ৭ শতক জমি ক্রয় করে মালিক হয়েছেন। যা সম্পুর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। ৪০ বছর পূর্বে অনন্ত মুখার্জীর কুয়াকাটায় কোন অস্তিত্ব ছিলনা এবং দাবীকৃত জমির মালিকানার কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। বিরোধী পক্ষের সাথে গোপন আতাঁত করে রাজনৈতিক ভাবে সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য এমপি মুহিবের নামে অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমরা এমন মিথ্যা সংবাদ ও অপপ্রচারের তীব্র প্রতিবাদ জানাই। অপপ্রচারকারীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী করেন সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ।সাংবাদিক সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কাজী সাঈদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন আনু, বিজয় টিভির সাংবাদিক হোসাইন আমির, সাংবাদিক জাহিদুল ইসলাম বেলালসহ ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ