September 17, 2019, 12:13 pm

উপজেলা আওয়ামীলীগে হতাশা কলাপাড়ায় ঈদ শুভেচ্ছা পোষ্টার ছেড়ার হিড়িক

Spread the love

আনু আনোয়ার,পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী

শেখ হাসিনা, সজীব ওয়াজেদ জয়, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাকিবুল আহসান ও পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদারের ছবি সম্বলিত ঈদ শুভেচ্ছা দেয়ার পোষ্টার, ব্যানার, ফেস্টুন, বিল বোর্ড ও প্লাকার্ড ছেড়ার হিড়িক পড়েছে। রাতের আধারে কে বা কারা এসব পোষ্টার ছিড়ে ফেলছে কেউ বলতে পারছেন না। তবে কলাপাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগে নেতৃত্বের দন্দের কারনে এসব পোষ্টার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে বলে অনেকেই মনে করছেন। এ ঘটনায় ৮ মে (শনিবার) কলাপাড়া থানায় পৃথক দুটি জিডি করেছে কলাপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাকিবুল আহসান ও কলাপাড়া পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার। জিডি নং-৬৬৪/১৯ ও ৬৬৫/১৯।জিডিতে উল্লেখ করা হয়, গত ০৬ মে সোমবার দিবাগত রাতের আধারে একদল সন্ত্রাসী গ্রুপ এসব পোষ্টার ব্যানার ধারালো চাকু দিয়ে ছিড়ে ও ভেঙ্গে ফেলেছে। এর ফলে দলের মধ্যে স্বাভাবিক শৃঙ্খলা  বিঘ্নিত হতে পারে এবং আইন শৃঙ্খলা অবনতি হতে পারে বলে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাকিবুল আহসান উল্লেখ করেন। বিষয়টি কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) সরেজমিনে পরিদর্শন পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধে জিডি করেন তারা।সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, কলাপাড়া থানার সামনেসহ পৌর শহরের গুরুত্বপূর্ন স্থানে সাটানো বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সজীব ওয়াজেদ জয়, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক রাকিবুল আহসান ও পৌর মেয়র বিপুল হাওলাদারের ছবি সম্বলিত ঈদ শুভেচ্ছা দেয়ার পোষ্টার, ফেস্টুন, ব্যানার, বিল বোর্ড ও প্লাকার্ড ছিড়ে ফেলা হয়েছে। কোন কোন পোষ্টারে ধারালো চাকু অথবা ব্লেড দিয়ে মাঝখানে শুধুমাত্র একটান দিয়ে ছিড়ে ফেলা হয়েছে। কোথাও আবার ব্যানার গুলো ছিড়ে নিচে ফেলা দেয়া হয়েছে। কোন কোন স্থানের সাটোনো পোষ্টার উধাও হয়ে গেছে। এঘটনায় কলাপাড়া উপজেলা আ.লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে এক ধরনের উত্তেজনাকর পরিবেশ বিরাজ করছে।কলাপাড়া উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুলতান মাহমুদ জানান, জাতির জনকের সম্বলিত পোষ্টার ছেড়ার ঘটনা আসলেই দু:খজন। যারা এসব পোষ্টার ছেড়ার সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করছি।কলাপাড়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শফিকুল আলম বাবুল খান জানান, দলের ভিতরে অনুপ্রবেশ কারীরা এ ঘটনা ঘটাতে পারে বলে আমার কাছে মনে হচ্ছে। যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের মাঝে আদর্শ নেই, তারা হীন মানসিকতার লোক।কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, অনুসন্ধান সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/ ৮ জুন ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ