January 20, 2020, 12:26 pm

শিরোনাম :
জৈন্তাপুরে সুচনা প্রকল্পের এ্যাডভোকেসী কর্মশালা অনুষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী নীলাখিয়া আর.জে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় টিফিন প্রিয়টে ছুটির ঘণ্টা কেশবপুরের মূলগ্রাম বাজারে দুঃসাহসিক চুরি! চিলমারীতে সরকারীভাবে ধান ক্রয়ের লটারীতে কৃষক তালিকায় ব্যপক অনিয়ম মৃত ব্যাক্তির নামসহ ধান দিচ্ছেন সিন্ডিকেটরা চট্টগ্রামের লালদীঘিতে ২৪ জনকে হত্যা মামলার রায় ঘোষণা,৫ জনের মৃত্যুদণ্ড থানা হাজতে আসামির মৃত্যু নিয়ে যা বললেন ডিএমপি কমিশনার মো. শফিকুল ইসলাম ৩৫০ শীতার্ত নারী-পুরুষকে কম্বল দিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই রাজ্যের হনুলুলু শহরের হায়মন্ড হেড এলাকায় গুলি করে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যা করেছে এক দুর্বৃত্ত ভারতের রাজধানী দিল্লিতে ফের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ২৫০ কেজির আইএস নেতাকেপুলিশের জিপে ঢোকানো সম্ভব হয়নি,নেয়া হল ট্রাকে

ঈদ সামনে রেখে বেড়েছে রেমিট্যান্স, জুলাইয়ে এসেছে ১৬০ কোটি ডলার

Spread the love

ঈদ সামনে রেখে বেড়েছে রেমিট্যান্স, জুলাইয়ে এসেছে ১৬০ কোটি ডলার

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

আসন্ন কোরবানির ঈদ সামনে রেখে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স বেড়েছে। জুন মাসের তুলনায় ২৩ কোটি ডলার বেশি পাঠিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। জুলাই মাসে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ১৬০ কোটি ডলারের। বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জুনমাসে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের পরিমাণ ছিল ১৩৭ কোটি ডলার, জুলাই শেষে তা ২৩ কোটি ডলার বেড়ে ১৬০ কোটি ডলার হয়েছে। ঈদের আগে প্রবাসীরা আত্মীয়-স্বজনের কাছে অর্থ একটু বেশিই পাঠিয়েছেন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইতে ব্যাংকিং চ্যানেলে বড় অঙ্কের রেমিট্যান্স এসেছে দেশে। যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ২৯ কোটি ডলার বেশি। মে মাসে রেমিট্যান্স এসেছে ১৭৪ কোটি ৮১ লাখ ডলার। রেমিট্যান্সের এই পরিমাণ ছিল একক মাস হিসেবে এ যাবতকালের সর্বোচ্চ। পরের মাস জুনে রেমিট্যান্স কিছুটা কমে এসেছিল ১৩৬ কোটি ৪২ লাখ। তবে জুলাইতে সেটি আবার বেড়ে হয়েছে ১৫৯ কোটি ৭৬ লাখ ডলার। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যানুযায়ী, গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ব্যাংকিং চ্যানেলে এক হাজার ৬৪১ কোটি ৯৬ লাখ ডলার রেমিট্যান্স আসে। যা দেশের ইতিহাসে এক অর্থবছরে সর্বোচ্চ। আগের ২০১৭-১৮ অর্থবছরে রেমিট্যান্স আসে এক হাজার ৪৯৮ কোটি ডলার। এই হিসাবে গত অর্থবছরে রেমিট্যান্স বেড়েছে সাড়ে ৯ শতাংশ। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, টাকার বিপরীতে ডলারের দাম বৃদ্ধি, হুন্ডি প্রতিরোধসহ নানা পদক্ষেপ নেওয়ার ফলে বৈধ পথে রেমিট্যান্স আসার পরিমাণ বাড়ছে। বিশেষ করে ২০১৮ সালের শুরু থেকে বৈধপথে রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। সরকার বৈধপথে দেশে প্রবাসী আয় আনার উদ্যোগ নিয়েছে। তার আলোকে চলতি অর্থবছর থেকে ১ হাজার ডলার বা তার বেশি পরিমাণ অর্থ পাঠালে ২ শতাংশ নগদ প্রণোদনা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সরকার। ১ জুলাই থেকেই এটি কার্যকর হবে।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ