October 8, 2019, 11:55 am

আবরার হত্যার প্রতিবাদে বেরোবিতে বিক্ষোভ ক্যাম্পাসে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি

Spread the love

 

 

আবুল হোসেন বাবলু:

 

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েটমেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শিক্ষার্থীরা

মঙ্গলবার (০৮ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে নগরীর মডার্ণ মোড়ে মহাসড়কে অবস্থান করে শিক্ষার্থীরা। এসময় শিক্ষার্থীরাক্যাম্পাসে হত্যাকাণ্ড, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘আবরার হত্যার বিচার চাই, ভাইকে হত্যার বিচার চাই’, ‘ক্যাম্পাসে সন্ত্রাস রুখে দাঁড়াও ছাত্রসমাজপ্রভৃতি স্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড বহন করে আধাঘন্টার জন্য ঢাকারংপুর মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা

এসময় আবরারের খুনিদের ফাঁসির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। পরে সড়ক অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সংলগ্ন পার্কের মোড়ে এসে মানববন্ধনে রুপ নেয়

এসময় মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, আবরারকে যারা হত্যা করেছে তারা অজানা কেউ না। তারা যাই হোক খুনি ছাড়া অন্য কিছু না। তাদের কঠোর শাস্তি দিতে হবে। অপরাধীদের ফাঁসির আওতায় আনার দাবি জানায় শিক্ষার্থীরা

আবরার ফাহাদ হত্যার সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগ নেতাদের ফাঁসির দাবি করে শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, ‘আবরার হত্যার পেছনে ছাত্রলীগের অতিমাত্রায় ভারতপ্রেম প্রেরণা জুগিয়েছে। দেশপ্রেমিক আবরারের ভারতবিদ্বেষী স্ট্যাটাস দেয়ার কারণে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়

তারা আরো বলেন, আমরা চাইনা কোনো কুলাঙ্গারের হাতে আর কোনো বাবামায়ের বুক খালি হোক। প্রতিটি ক্যাম্পাসে এই মানুষরুপী হায়েনাদের চিহ্নিত করে বহিষ্কার করতে হবে

এসময় শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধের জোড়ালো দাবি জানান

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন হাসান, শাহজাহান, মিজান, রাব্বী, রিপন, শাহ আলম, মিলন, নজরুল প্রমুখ

প্রসঙ্গত, ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়ার জের ধরে আবরার ফাহাদকে রোববার ( অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে শেরে বাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা দুইতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে রাজধানীর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত জন ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করে পুলিশ

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ