September 20, 2019, 1:47 am

শিরোনাম :
ভোলা লালমোহনে নাতনীর সাথে অসামাজিক কাজের চেষ্টা,এবং দাদা আটক কেশবপুরে অধ্যক্ষের দূর্ণীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় মাদ্রাসা প্রভাষককে মারপিট নগদ অর্থ ও মোবাইল ছিনতাই সুন্দরগঞ্জে পোনা মাছ অবমুক্ত করণ ২০ হাজার মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে পায়রা বন্দরে নোঙর করেছে জাহাজ এমভি ঝিং হাই টং-৮ আলফাডাঙ্গায় আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা লালপুরে ডাকাতির নাটক সাজাতে গিয়ে বিকাশ কর্মীসহ আটক ২ লতিফিয়া ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও সংবর্ধনা সম্পন্ন সহকারী শিক্ষকদের ১১ তম ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ তম গ্রেডের দাবিতে আলফাডাঙ্গায় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মানব বন্ধন শৈলকুপা পৌর ভবন থেকে বিপুল পরিমান ভিজিএফ’র চাউল জব্দ শৈলকুপায় প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডের দাবিতে মানববন্ধন

আফগানিস্তানে সেনা কমানোর ঘোষণা ট্রাম্পের

Spread the love

আফগানিস্তানে সেনা কমানোর ঘোষণা ট্রাম্পের

ডিটেকটিভ আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা কমিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির  প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বৃহস্পতিবার তিনি বলেন, আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা সংখ্রা ৮ হাজার ৬০০ তে নামিয়ে আনা হবে। বর্তমানে সেখানে ১৪ হাজার মার্কিন সেনা অবস্থান করছেন। তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।নাইন ইলেভেনের হামলার পর ২০০১ সালে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের নির্দেশে আফগানিস্তানে মার্কিন অভিযান শুরু হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে আফগানিস্তানে তালেবানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ অভিযান শেষ হয় ২০১৪ সালে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ বাহিনী এখনও আফগান সেনাদের সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে। আফগানিস্তানে এখনও ১৪ হাজার মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে।২০১৭ সালের আগস্টে দক্ষিণ এশিয়া নিয়ে ট্রাম্পের পরিকল্পনা প্রকাশিত হয়। সেখানে ১৮ বছরের যুদ্ধের অবসান ঘটিয়ে শান্তি আলোচনার কথা বলেন তিনি। বৃহস্পতিবার ট্রাম্প বলেন, যুদ্ধবিদ্ধস্ত আফগানিস্তানে সবসময়ই যুক্তরাষ্ট্র অবস্থান করবে। একে সন্ত্রাসবাদের ‘হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়’ বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। ট্রাম্প বলেন, আমরা খুবই সতর্কতার সঙ্গে আমাদের সংখ্যা কমিয়ে আনছি। তবে সবসমিই আমরা তাদের পাশে থাকবো। যদি আফগানিস্তানের সঙ্গে কিছু করা হয়, তবে যেকোনও সময়ের চেয়ে শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসবো আমরা। এর আগে ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, হত্যাযজ্ঞের মাধ্যমে তিনি ১৮ বছরের যুদ্ধের অবসান ঘটাতে পারতেন। কিন্তু তিনি সেটা করতে চাননি। তিনি বলেন, আমরা এখানে কোনও যুদ্ধ করতে আসিনি। আমরা পুলিশের দায়িত্ব পালন করছি। যুদ্ধ শেষ করতে চাইলে আমরা ১০ লাখ মানুষ হত্যা করতে পারতাম।বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে তালেবানের সঙ্গে শান্তি আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এমন সময় এই ঘোষণা সেখান থেকে অনেকটা দৃষ্টি সরিয়ে নেবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মার্কিন ভোটারদের ওপরও এর প্রভাব পড়বে।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ