January 16, 2020, 2:33 am

শিরোনাম :
কেশবপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মা,ছেলের মৃত্যু পূর্ব জাফলংয়ে বিভিন্ন রাস্তা উদ্বোধন ও পরিদর্শনে চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ যশোরের বাঁকড়া বাজারে আইন-শৃংখলা মিটিংয়ের নামে চাঁদাবাজীর অভিযোগ যশোরে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে মা-ছেলের করুন মৃত্যু রংপুরে অসহায় মানুষের মাঝে রওনকের শীতবস্ত্র বিতরণ ভোলা বোরহানউদ্দিনে পরিবেশ দূর্ষনের কারনে ইট ভাটায় অভিযান ভোলা জেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপিঠ পদ্মামনসা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী সিনিয়র শিক্ষক মোঃ ছিদ্দিক স্যারের বিদায় অনুষ্ঠান ভোলায় বাবা মায়ের আকুতি ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত শিশু মরিয়মকে বাঁচাতে চায় ফুলবাড়ীর রুদ্রানী উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি উদযাপিত

অপরিবর্তনীয় বন্ধুত্বের প্রশংসায় কিম

Spread the love

অপরিবর্তনীয় বন্ধুত্বের প্রশংসায় কিম

ডিটেকটিভ আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের উত্তর কোরিয়া সফরে বেইজিং-পিয়ংইয়ংয়ের ‘অজেয়, অপরিবর্তনীয়’ বন্ধুত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন কিম জং উন।

উত্তরের এ শীর্ষ নেতা বৃহস্পতিবার শি-র সঙ্গে বৈঠকের পর এ মন্তব্য করেন বলে কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সির (কেসিএনএ) বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিবিসি।

দায়িত্ব নেওয়ার পর উত্তর কোরিয়ায় শি-র এটাই প্রথম রাষ্ট্রীয় সফর। দুইদিনের এ সফর শুক্রবার শেষ হওয়ার কথা।

নিষেধাজ্ঞায় জর্জরিত উত্তর কোরিয়ার সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসেবে বেইজিংয়ের পরিচিতি থাকলেও সাম্প্রতিক সময়ে তাতে খানিকটা ভাঁটা পড়েছে বলে পর্যবেক্ষকদের অনুমান।

উত্তরের পরমাণু কর্মসূচি ও পিয়ংইয়ংয়ের ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞায় চীনের সমর্থন নিয়েই এ টানাপোড়েন বলেও ভাষ্য তাদের।

জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেওয়ার আগেই চীনের প্রেসিডেন্টের উত্তর কোরিয়া সফর নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলেও বেশ কৌতূহল লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সপ্তাহখানেক পরে হতে যাওয়া ওই জি-২০ সম্মেলনে শি-র সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের বৈঠক হওয়ার কথা।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীন ও উত্তর কোরিয়ার আলাদা আলাদা বিষয় নিয়ে দ্বন্দ্বও চলছে। বেইজিংয়ের সঙ্গে ওয়াশিংটনের বিরোধ বাণিজ্য নিয়ে, পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে বিরোধ কোরীয় উপদ্বীপের নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে।

শুক্রবার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ’তে শি-র সফর ব্যাপক গুরুত্ব পায়।

“আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক পরিস্থিতির যে জটিল ও গুরুতর পরিবর্তন ঘটছে, তখন দুই নেতা কোরীয় উপদ্বীপসহ গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক বিষয় নিয়ে মতবিনিময় করেছেন,” বলেছে তারা।

কিম এ বৈঠককে দুই মিত্র দেশের ‘অজেয় ও অপরিবর্তনীয়’ বন্ধুত্ব প্রদর্শনের সুযোগ হিসেবে অ্যাখ্যা দিয়েছেন, বলেছে কেসিএনএ।

বৈঠকে শি কোরীয় উপদ্বীপের নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে উত্তর কোরিয়ার অবস্থানে পূর্ণ সমর্থন দিয়েছেন এবং পিয়ংইয়ং ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে আলোচনা অব্যাহতের ওপর জোর দিয়েছেন, জানিয়েছে চীনা গণমাধ্যম।

ফেব্রুয়ারিতে ভিয়েতনামে ট্রাম্প-কিম দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠকের পর এবারই প্রথম শি-কিম বৈঠকে মিলিত হলেন। হ্যানয়ের ওই বৈঠকটি কোনো চুক্তি ছাড়াই ভেস্তে গিয়েছিল।

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতায় আসায় পর থেকে এ নিয়ে ৪ বার চীন সফর করেছেন কিম।

অন্যদিকে ২০০৫ সালে চীনের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট হু জিনতাওয়ের সফরকালে উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতায় ছিলেন কিমের বাবা কিম জং ইল।

উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক কার্যক্রমের কারণে দেশটির ওপর ধারাবাহিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে জাতিসংঘ। বেইজিং এসব নিষেধাজ্ঞায় সমর্থন দিলেও শি-র এবারের সফর দুই দেশের সম্পর্কের উন্নতিতে ভূমিকা রাখবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ