November 15, 2019, 4:45 am

শিরোনাম :
জগন্নাথপুরে আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে সামনে রেখে চলছে পদ প্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ সুন্দরগঞ্জে ২ মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সুনামগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী আন্তঃ উপজেলা কুস্তি প্রতিযোগিতা সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন যশোরের বেনাপোল সীমান্তে ৬ কেজি গাঁজা সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক সুন্দরগঞ্জে সচেতনতামূলক গণ নাটক সংবাদ সম্মেলন মহাসড়ক চারলেনে উন্নীতকরণে গোবিন্দগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্য চাষীদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার দাবি মৌলভীবাজারে কুশিয়ারা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে ফুঁসে ওঠেছেন খলিলপুর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের মানুষ গোয়াইনঘাটে মাসিক সভায় ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে পাথর কোয়ারী সচল রাখার সিদ্ধান্ত পিয়াজের দামে হতাস সাধার জনগন জেলার মহিলা শ্রেষ্ঠ করদাতা রাজারহাটের ফরিদা ইয়াসমিন

অধ্যক্ষের ফাঁসির দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন ঝালকাঠিতে সেই ধর্ষক মাদ্রাসা অধ্যক্ষ’র স্থায়ী জামিন লাভ

Spread the love

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠিতে সেই ধর্ষক মাদ্রাসা অধ্যক্ষ এর জামিন দিয়েছে ঝালকাঠির জেলা ও দায়রা জজ নারী ও শিশু নির্যাতন ভবন ট্রাইব্যুনাল-১। যার মামলা নং জিআর ২০৩। রবিবার বেলা ১২টার দিকে তাকে জামিন প্রদান করেন ঝালকাঠির উক্ত আদালত। এদিকে মাদ্রাসা সুপার কতৃর্ক নিজ ছাত্রীকে ধর্ষনের ঘটনায় এলাকায় শনিবার ফাঁসির দাবীতে শত শত লোক মানব বন্ধন পালন করে। কিন্তু পরের দিন রবিবার জামিন দেন আদালত। ঘটনার বিবরণে জানা যায়,ঝালকাঠি সদর উপজেলার তেরআনা শাহমাহমুদিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এসএম কামাল উদ্দিন খন্দকারের বিরুদ্ধে নিজ মাদ্রাসার ৮ম শ্রেনির এক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণ করার অভিযোগ মামলা হয়। ঐ ছাত্রী কামাল উদ্দিনের বাসায়ই গৃহপরিচারিকার কাজ করতো। ধর্ষনের খবর পেয়ে শনিবার রাতে পুলিশ কামালের মেঝ ভাইয়ের বাড়ী থেকে ঐ ছাত্রীকে উদ্ধার করে ঝালকাঠিতে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে আসে। ঘটনার পর কামাল উদ্দিন পলাতক রয়েছিল।এলাকাবাসী জানায়, গত শুক্রবার দুপুরে কামাল উদ্দিন নিজ বাড়ীতে ঐ ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন। ্এ সময় ঘটনাটি জানাজানি হলে কামাল গা ঢাকা দেয়। ধষর্নের স্বীকার মেয়েটিকে কামালের মেঝ ভাই জামাল উদ্দিনের বাড়ীতে আটকে রাখা হয়। সেখান থেকে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে ঝালকাঠি নিয়ে আসে। এলাকাবাসী আরো জানায়, ঐ দরিদ্র মেয়েটিকে বাসায় কাজে রাখার সুবাধে দীর্ঘদিন থেকে সুপার কামাল উদ্দিন জোরপূর্বক শারীরীক সর্ম্পক করে আসছিলেন। গত শুক্রবার দুৃপুরে বিষয়টি জনসম্মুখে প্রকাশ পায়। গাভারাম চন্দ্রপুর ৬ নং ওয়ার্ডের ্ইউপি সদস্য সাগর মাঝি সাংবাদিকদের বলেন, কামাল উদ্দিন নিজ মাদ্রাসার ছাত্রীকে বাসায় ধর্ষণ করেছেন, এ খবর আমি শুনেছি। এলাকাবাসী জানায়, মাদ্রাসা সুপার প্রভাবশালী হওয়ায় অনেকেই তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে চান না। কয়েক বছর আগেও কয়েকবার বার সুপার কামালের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের ধষর্ণের অভিযোগ উঠে ছিলো। তখন বিষয়টি স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের হস্তক্ষেপে সুপার ধামাচাপা দিতে সক্ষম হন।অধ্যক্ষ এসএম কামালের আইনজীবি এ্যাড. বনি আমীন বাকলাই এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, মামলার ড্রাফটে কিছু ত্রুটি থাকায় সে অতি সহজে জামিন পেয়েছে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ